নোয়াখালীতে বাসচাপায় মা-মেয়ে ও কলেজছাত্রসহ নিহত ৪

0
195

নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাসপুরে বাস ও সিএনজি চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে মা-মেয়ে ও এক কলেজছাত্রসহ চারজন নিহত ও আরও দুইজন আহত হন। আজ শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার পর পুলিশ ও স্থানীয়রা ঘটনার স্থলে নিহত মা-মেয়ে ও কলেজছাত্র এবং আহত তিনজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে একজন হাসপাতালে মারা যান।

নিহতরা হলেন- বেগমগঞ্জের মুজাহিদপুর গ্রামের বাদলের স্ত্রী খদিজা খাতুন (৪০), তার মেয়ে কামরুন্নাহার পলি আক্তার (২৫), দরবেশপুর গ্রামের ওমর ফারুকের ছেলে ও নোয়াখালী সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র শহিদুল ইসলাম সাকিব (২০) এবং পরে হাসপাতালে মারা যান সোনাইমুড়ী উপজেলার উত্তর অম্বরনগর গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে ইব্রাহিম রাজু (৪৫)। অন্যদিকে গুরুতর আহত অটোরিকশার চালক মাসুদ আলম (৩৫) ও নিহত খদিজা খাতুনের ছেলে রনিকে (১৫) নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থার অবনতি হলে বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এ তথ্য জানিয়েছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে ফেনী থেকে সুগন্ধা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস নোয়াখালী জেলা সদরের সোনাপুরের দিকে আসছিল। একই সময় মাইজদী শহর থেকে যাত্রীবাহী সিএনজি চালিত অটোরিকশাটি চৌমুহনীতে যাচ্ছিল। পথে একলাসপুর গ্রামের রশীদ কোম্পানির দরজা নামক স্থানে বাস ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বেগমগঞ্জ সার্কেলেরর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান শেখ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও অটোরিকশাটি উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here